বাংলাদেশে শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা নিয়ে যা বললেন শ্রাবন্তী

Showbiz


ভারতের বাংলা ছবির অন্যতম জনপ্রিয় নায়িকা শ্রাবন্তী। যৌথ প্রযোজনার ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে বাংলাদেশেও নিজের একটা অবস্থান তৈরি করে নিয়েছেন তিনি। মুহাম্মদ মুস্তফা কামাল রাজ পরিচালিত ‘যদি একদিন’ ছবিতে তাহসানের বিপরীতে অভিনয় করছেন শ্রাবন্তী। সম্প্রতি বাংলাদেশ থেকে শুটিং করে কলকাতায় ফিরেছেন নায়িকা। ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন অভিনেতা সোহমের সঙ্গে আসন্ন ‘পিয়া রে’ ছবির প্রোমোশন নিয়ে। এরই ফাঁকে ‘আনন্দবাজার পত্রিকা’কে একটা দীর্ঘ সাক্ষাৎকার দিয়েছেন শ্রাবন্তী, যেখানে বাংলাদেশে শুটিংয়ের প্রসঙ্গ টেনে আনেন নায়িকা।

হার্ডকোর কমার্শিয়াল হিরোইন, নাকি একটু অন্য ধারার চরিত্র— কোনটাতে কেমন ফিডব্যাক? সাংবাদিকের এমন প্রশ্নের জবাবে শ্রাবন্তী বলেন, দেখুন, আমার মনে হয়েছে আমাকে দু’ধরনের চরিত্রেই দর্শক পছন্দ করেন। সম্প্রতি বাংলাদেশ গিয়েছিলাম। দারুণ অভিজ্ঞতা। সবাই যে ভালবাসছে, আপু বলছে। এটাই ভাল লাগছিল। কিছুদিন আগে ‘উমা’ রিলিজ করল। ভাল ফিডব্যাক পেয়েছি। আমরা তো ক্ষুধার্ত। ভাল চরিত্র পেলেই করে দেখাব। কিন্তু ডিরেক্টরদের তো ভাবতে হবে…। আর একটা জিনিস আমি বলতে চাই। এখন আমাদের সকলেরই কনটেন্ট নিয়ে ভাবা উচিত। দর্শক এখন গল্প চায়। সব জায়গায় এখন কনটেন্টই আসল।

‘পিয়া রে’ ছবির গল্প প্রসঙ্গে নায়িকা বলেন, এটা ভালোবাসার ছবি। ‘অমানুষ’-এর পর সোহম-শ্রাবন্তীকে আবার এমন চরিত্রে দেখা যাবে যেখানে দু’জনেই দু’জনকে ভালোবাসে। তারপর কী টালমাটাল আছে সেটা সিনেমা হলে গিয়ে দেখতে হবে।

তবে নিজের চরিত্র সম্পর্কে একটা আভাস দেন শ্রাবন্তী। বলেন, ছবিতে আমার চরিত্রের নাম রিয়া। বস্তিতে থাকে। ডিগ্ল্যাম লুক। আমার দাদার চরিত্রে রয়েছে কাঞ্চনদা। ওর চরিত্রটা কিন্তু একদম কমেডি নেই। ও গুণ্ডা। বোনকে মারধর করে। রিয়ার বাবা নেই। মা কাজকর্ম করে সংসার চালায়। রিয়া ভালোবাসতেও ভয় পায়। কমিটমেন্টে যেতে ভয় পায়। কিন্তু মেয়ে তো আফটার অল। ভালোবাসতে চায়। সেখানে রবি (সোহমের অভিনীত চরিত্র) ওর পাশে এসে দাঁড়ায়। আর একজনের কথা বলতে চাইব, সোমরাজ। প্রথমবার কাজ করেছে। খুব ভাল কাজ করেছে। কোথাও একটা ট্রায়াঙ্গেল লভ স্টোরিও হয়।

শ্রাবন্তী জানান, কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে সিরিয়াল করেছি। কিন্তু সিনেমা করিনি। গৌতম ঘোষ, অঞ্জনদা, রাজা চন্দ— এদের সঙ্গে আমি কাজ করতে চাই। তবে কৌশিকদার সঙ্গে একটা কাজ ডেট প্রবলেমের জন্য হয়নি। তবে আমি সময়ে বিশ্বাস করি। সব কিছুরই একটা নির্দিষ্ট সময় থাকে। মন থেকে চাইলে ঠিক সময়ে কাজটা হবেই। সেই ইচ্ছেটা পূরণ হবেই।

আর অভিনেতা? নায়িকা বলেন, বুম্বাদা। বুম্বাদার সঙ্গে কাজ করতে চাই। অনেক ছোটবেলায় ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছিলাম বুম্বাদার সঙ্গে। বড় হয়ে যাওয়ার পর আর কাজ করিনি।

বিডি-প্রতিদিন/২৩ জুলাই, ২০১৮/মাহবুব


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *